উলিপুরে মাদ্রাসা ছাত্রীকে ধর্ষনের অভিযোগ, আটক একজন

0
181
উলিপুরে মাদ্রাসা ছাত্রীকে ধর্ষনের অভিযোগ, আটক একজন

উলিপুর (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি : কুড়িগ্রামের উলিপুরে এক মাদ্রাসা ছাত্রীকে ধর্ষনের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় ওই ছাত্রীর পিতা বাদী হয়ে ধর্ষকসহ ৩জনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করলে পুলিশ একজনকে আটক করেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, উপজেলার দলদলিয়া ইউনিয়নের মহাদেব ফকির পাড়া গ্রামের নুর আলমের মেয়ে পার্শ্ববতী রাজারহাট উপজেলার শরফ উদ্দিন মহিলা দাখিল মাদরাসার ৯ম শ্রেণির শিক্ষার্থী (১৪)। সে গত শনিবার (২৭ জুলাই) সকালে মাদ্রাসা যাওয়ার পথে আত্বিয়তার সূত্রে পূর্ব পরিচিত রাজারহাট উপজেলার বালাকান্দি হাজিপাড়া গ্রামের রফিকুল ইসলামের পুত্র কুড়িগ্রাম সরকারি কলেজের ছাত্র আবু সায়েম (১৯) তাকে জিয়া পুকুরে ঘুরতে নিয়ে যাওয়ার কথা বলে কৌশলে মোটরসাইকেলে তুলে নেয়।

পরে জিয়া পুকুর সংলগ্ন আনন্দ বাজার এলাকায় সায়েম তার এক বন্ধুকে একই মোটর সাইকেলে তুলে নিয়ে কুড়িগ্রাম শহরের ওই বন্ধুর নানার বাড়িতে নিয়ে যায়। সেখানে বন্ধুর সহযোগিতায় আবু সায়েম ওই মাদ্রাসা ছাত্রীর ইচ্ছার বিরুদ্ধে ধর্ষন করে। এরপর মোটর সাইকেলযোগে ওই ছাত্রীর বাড়ি সংলগ্ন এলাকায় তাকে নামিয়ে দিয়ে কৌশলে সায়েম পালিয়ে যায়।

এ ঘটনা বাড়িতে এসে ওই ছাত্রী মা-বাবাকে জানায়। ছাত্রীর বাবা সায়েমের পরিবারকে বিষয়টি জানালে তারা উল্টো তাকে ভয়ভীতি দেখিয়ে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দেন। পরে ওই ছাত্রীর পিতা সোমবার (২৯ জুলাই) সায়েমসহ তিন জনের বিরুদ্ধে উলিপুর থানায় মামলা দায়ের করলে পুলিশ সায়েমের মামা আলম মিয়া (৫৫) কে গ্রেপ্তার করেন।

উলিপুর থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) আনোয়ারুল ইসলাম জানান, আটক আলম মিয়াকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। অন্যান্য আসামীদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে এবং আদালতে ভিকটিমের জবানবন্দি গ্রহনসহ ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পন্ন করা হয়েছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here