কলমাকান্দায় বন্যার পানিতে ভেসে গেল মাছ, চাষীর মাথায় হাত

0
21
কলমাকান্দায় বন্যার পানিতে ভেসে গেল মাছ, চাষীর মাথায় হাত

মোঃ রিপন মিয়া কলমাকান্দা প্রতিনিধিঃ নেত্রকোনার কলমাকান্দায় পাহাড়ি ঢল ও অতিবৃষ্টির কারণে দুই দফা বন্যায় কলমাকান্দায় ৩৩০০পুকুরের মাঝে প্রায় ২৪০০টি পুকুরের মাছ ভেসে গেছে। এতে পুঁজি হারিয়ে পথে বসেছেন অনেক মৎস্যচাষি। কলমাকান্দার রংছাতি ইউনিয়নের রায়পুর, বরকান্দা, কৃষ্ণপুর, এলাকার আক্কাস আলী মেম্বার ও আল মামুন আমাদের প্রতিবেদককে জানান আমাদের এলাকার বেকার যুবকেরা মৎস্য চাষের উপর নির্ভর করে। কলমাকান্দা উপজেলার বেশি সংখ্যক পুকুর বিরাজমান বর্তমানে আমাদের এই এলাকার মানুষ এই বন্যায় সর্বস্বান্ত হয়ে পড়েছে।উপজেলা মৎস্য

কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার আটটি ইউনিয়নে প্রায় ১০০০ মেট্রিকটন মাছের ক্ষতি হয়েছে। যার বাজারমূল্য প্রায় ১০ কোটি টাকা। এ উপজেলায় মুক্ত ও বদ্ধ জলাশয়ের পরিমাণ ৪৩০০ হেক্টর। তাতে মাছ উৎপাদন হয় সাড়ে ১২ হাজার মেট্রিকটন। উপজেলায় চাহিদা প্রায় ৮ হাজার মেট্রিকটন। আর ৪ হাজার মেট্রিকটন উদ্বৃত্ত। বড়খাপন এলাকার মৎস্যচাষি শফিকুল ইসলাম বলেন, আমি তিনটি পুকুরে বাণিজ্যিক ভিত্তিতে মাছ চাষ করি। বন্যার আশঙ্কায় পুকুরের পাড়ে জাল দিয়ে ঘের দিয়েছিলাম। কিন্তু কোনো কাজ হয়নি। ঢলের তোড়ে জালের বেড়া তো টেকেইনি, পাড়ও ধসে গেছে। চোখের সামনে দিয়ে প্রায় চার লাখ টাকার মাছ ভেসে গেছে।

উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা অনিক রহমান আমাদের প্রতিবেদককে জানান, উপজেলার আটটি ইউনিয়নে প্রায় ১০ কোটি টাকার মৎস্য সম্পদ এ বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। আমরা ইতিমধ্যেই ক্ষতিগ্রস্ত মৎস্যচাষীদের তালিকা করে জেলা মৎস্য কর্মকর্তার কার্যালয়ে পাঠিয়েছি। বরাদ্দ পেলে বিতরণ করা হবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here