কাউন্সিলর আমির হোসেন বাহার বাল্য বিবাহের শিকার স্কুলছাত্রীর পড়ালেখার দায়িত্ব নিলেন

0
6
কাউন্সিলর আমির হোসেন বাহার বাল্য বিবাহের শিকার স্কুলছাত্রীর পড়ালেখার দায়িত্ব নিলেন

জহিরুল আলম কামরুল, ফেনী: ফেনীর রামপুর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণীর হতদরিদ্র স্কুলছাত্রী পড়ালেখার দায়িত্ব নিলেন ফেনী পৌরসভার ১৬ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আমির হোসেন বাহার। গত শুক্রবার দিন ছাত্রীর বাল্য বিবাহের দায়ে সংশ্লিষ্ট কাজীর ২০ হাজার টাকা জরিমানা ও স্কুলছাত্রীর বাবার ১৫ দিনের জেল দিয়েছেন ফেনী জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তাসলিমা শিরিন। গতকাল শুক্রবার দুপুরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ফেনীর রামপুর হাফেজ উকিল বাড়ি এলাকার ভাড়াটিয়া মো: জহির উদ্দিনের বাড়িতে অভিযান চালায় ভ্রাম্যমান আদালত। এ সময় ফেনীর রামপুর বালিকা বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণীর এক ছাত্রী সাথে বিয়ের আয়োজন চলছিল ২৫ বছর বয়সী কারখানা শ্রমিক আনোয়ারের সাথে। তারা উভয় নোয়াখালী জেলার

লক্ষীপুরের বাসিন্দা। শুক্রবার কাউকে না জানিয়ে কনের পিতা মো: তার তের বছর বয়সী মেয়েকে আলী আহম্মদের ছেলে মো. আনোয়ারের সাথে দিচ্ছিলেন। খবর পেয়ে ফেনী জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তাসলিমা শিরিন কনের বাড়িতে হানা দেয়। এ সময় অপ্রাপ্ত বয়স্ক মেয়ে বিয়ের দায়ে ফেনীর পৌরসভা ১৮ নং ওয়ার্ডের কাজী নিকাহ রেজিষ্টার আবদুল মতিনকে ২০ হাজার জরিমানা করে ভ্রাম্যমান আদালত। একই সময় মেয়ের পিতা কে মেয়ে বাল্য বিবাহের দায়ে ১৫ দিনের জেল দেন। পরে সেখানে উপস্থিত ফেনী পৌরসভার

১৬নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আমির হোসেন বাহার মেয়েটির স্কুলের পড়ালেখা সহ স্কুলের পড়াশুনার খরচের সমস্ত দায়িত্ব নেন। কাউন্সিলর আমির হোসেন বাহার জানান, মেয়েটির বাবা গরীব হওয়াতে এ মেয়েটির পড়ালেখার খরচ চালিয়ে যাওয়া তাদের পক্ষে সম্ভব নয়। তাই তাদের অসহায়ত্বের কথা চিন্তা করে আমি সিদ্ধান্ত নিয়েছি মেয়েটি প্রাপ্ত বয়স্ক না হওয়া পর্যন্ত তার স্কুলের সমস্ত পড়ালেখার ও পোষাকের পরিচ্ছদের যাবতীয় খরচ আমি বহন করবো।

 

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here