নোয়াখালীতে নকল কিডনির ঔষুধ জব্দ, চিকিৎসকের এক বছরের কারাদণ্ড

0
7
নোয়াখালীতে নকল কিডনির ঔষুধ জব্দ, চিকিৎসকের এক বছরের কারাদণ্ড

মোঃ জাহাঙ্গীর আলম নোয়াখালী প্রতিনিধি: নোয়াখালী পৌরসভার আইয়ুবপুর গ্রামে এক অভিযান চালিয়ে কিডনির নকল ওষুধ জব্দ করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। ঘটনায় জড়িত থাকায় ডাক্তার সালাহ উদ্দিন মাহমুদ নামে একজনকে আটক করা হয়েছে। পরবর্তীতে জব্দ ওই ঔষুধগুলো ধ্বংস ও আটক ব্যক্তিকে এক বছরের কারাদণ্ড প্রদান করা হয়। জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা সংস্থা এনএসআই-এর দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার রাত ৮টার দিকে আটক ডাক্তার সালাহ উদ্দিন মাহমুদকে এক বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেন জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তানিয়া আক্তার। দণ্ডপ্রাপ্ত সালাহ উদ্দিন মাহমুদের বাড়ি উপজেলার দাদপুর ইউনিয়নে। সে ওই ইউপির রামকৃষ্ণপুর গ্রামের জয়নাল আবেদিনের ছেলে।

ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্রে জানা গেছে, এনএসআই-এর দেওয়া তথ্যে জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তানিয়া আক্তারের নেতৃত্বে পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ড আইয়ুবপুর গ্রামে একটি ভুয়া ঔষুধ তৈরির কারখানায় অভিযান চালানো হয়। এসময় ওই কোম্পানির লগো সম্বলিত প্যাকেট ব্যবহার করা কিডনি রোগের নকল ওষুধসহ বিভিন্ন রোগের অন্তত ১৫-২০ লাখ টাকার ওষুধ জব্দ করা হয়। এসময় ওই ঔষুধগুলো কর্তৃপক্ষের কোন প্রকার অনুমোদন ছাড়া, অস্বাস্থ্যকর পরিবেশ, বিপজ্জনকভাবে তৈরি ও বাজারজাত করার অপরাধে প্রতিষ্ঠানটির মালিক ডাক্তার সালাহ উদ্দিন মাহমুদকে আটক করা হয়। এরপর রাতে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে আটক সালাহ উদ্দিনকে এক বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান ও একই সাথে জেলা ড্রাগ সুপার কার্যালয়ের সহকারী পরিচালকের উপস্থিতিতে জব্দ ওষুধগুলো ধ্বংস করা হয়।

 

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here