পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতিসহ শ্রমিকলীগের নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজীর মামলাউলিপুরে মামলা প্রত্যাহারের দাবীতে মানববন্ধনের আয়োজন , আটক ৩

0
5
পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতিসহ শ্রমিকলীগের নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজীর মামলাউলিপুরে মামলা প্রত্যাহারের দাবীতে মানববন্ধনের আয়োজন , আটক ৩

উলিপুর (কুড়িগ্রাম) উপজেলা সংবাদদাতা কুড়িগ্রামের উলিপুরে পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতিসহ শ্রমিকলীগের নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজীর মামলাকে মিথ্যা দাবী করে তা প্রত্যাহারের দাবীতে আয়োজিত মানববন্ধন পুলিশি বাধায় পন্ড হয়েছে। এ সময় মানববন্ধন থেকে তিনজনকে আটক করে থানা পুলিশ। ঘটনাটি ঘটেছে, রোববার (১৩ সেপ্টেম্বর) উলিপুর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার চত্বর এলাকায়। জানা গেছে, উপজেলার গুনাইগাছ ইউনিয়নের জুম্মাহাট গ্রামের রাশেদুল ইসলাম নামের এক অটো চালক চাঁদাবাজীর অভিযোগ এনে গত ১ সেপ্টেম্বর পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম, উপজেলা শ্রমিক লীগের সাধারন সম্পাদক মুকুল মিয়া (৩৬) ও পৌর শ্রমিক

লীগের সভাপতি সোহেল খাঁ (৩৫)সহ ৫জনের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজিসহ অটো গাড়ি চুরির অভিযোগে উলিপুর থানায় মামলা দায়ের করেন। এ ঘটনায় পুলিশ অভিযান চালিয়ে ওই দিন পৌর শ্রমিক লীগের সভাপতি সোহেল খাঁ ও তার সহযোগী ফরহাদ হোসেনকে গ্রেপ্তার করেন। পরবর্র্তীতে মামলার সকল আসামীরা জামিনে বেড়িয়ে আসেন।
রোববার (১৩ সেপ্টেম্বর) উলিপুর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার চত্বরে চাঁদাবাজীর মামলাকে মিথ্যা দাবী করে বাংলাদেশ অটোবাইক শ্রমিক কল্যাণ সোসাইটির ব্যানারে কিছু সংখ্যক অটোচালক পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতিসহ শ্রমিকলীগের নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে মিথ্যা

মামলা প্রত্যাহারের দাবীতে মানববন্ধনের আয়োজন করেন। মানববন্ধন চলাকালীন থানা পুলিশ তা পন্ড করে দেন। এ সময় মানববন্ধনে অংশ নেয়া তিনজনকে আটক করে পুলিশ। আটককৃতরা হলেন, গুনাইগাছ ইউনিয়নের নাগদা গ্রামের আকরাম আলীর ছেলে আরিফুজ্জামান (২১), কেবলকৃষ্ণ গ্রামের নুরুন্নবীর ছেলে এরশাদুল হক (২৪) ও মহিদেব গ্রামের আবুল হোসেনের ছেলে রাশেদুল ইসলাম (২৬)। আটককৃতরা বর্তমানে থানা হেফাজতে রয়েছেন। এ বিষয়ে পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি ও অটোবাইক সমিতির উলিপুর উপজেলা শাখার সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম বলেন, যারা মানববন্ধনের আয়োজন

করেছেন তারা আমার শুভাকাঙ্খী। মানববন্ধন শেষে পুলিশ এসে অতর্কিতভাবে তিনজনকে আটক করে নিয়ে যান। যাদের আটক করা হয়েছে তারা নিরীহ ব্যক্তি, ঘটনাটি দুঃখজনক।
উলিপুর থানার ওসি মোয়াজ্জেম হোসেন জানান, কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়াই, কী কারনে তারা মানববন্ধনের আয়োজন করেন তা জানার জন্য তাদের আটক করা হয়েছে। তাদের জিজ্ঞাসাবাদের পর পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here