মুসলিম খ্রিষ্টানের একসঙ্গে নামাজের পর নামল বৃষ্টি অস্ট্রেলিয়ায়

0
31
মুসলিম খ্রিষ্টানের একসঙ্গে নামাজের পর নামল বৃষ্টি অস্ট্রেলিয়ায়

ক্রাইম অনুসন্ধান ডেস্কঃ সেপ্টেম্বর থেকে অস্ট্রেলিয়ার শুরু হওয়া দাবানলে এখন পর্যন্ত প্রায় ২৪ জনের প্রাণহানি ঘটেছে। কয়েক মাস ধরে চলা এ দাবানল ভয়ঙ্কর রুপ নেয়ায় জীবন বাঁচাতে বাড়িঘর ছেড়ে পালানো মানুষকে সমুদ্র সৈকতেও আশ্রয় নিচ্ছেন। এরই মধ্যে গতকাল রোববার বৃষ্টির জন্য নামাজ আদায় করেছেন দেশটির সব ধর্মাবলম্বী মানুষ।ভয়াবহ এই দাবানলের ভুক্তভোগী শুধু মানুষ নয় প্রাণীকূলও। দেশটির পরিবেশ বিজ্ঞানীরা বলছেন, দাবানলের লেলিহান শিখায় অন্তত ৫০ কোটি প্রাণী মারা গেছে। এ থেকে পরিত্রান পেতে গতকাল রোববার অ্যাডিলেডের বোনিথন পার্কে নামাজের আয়োজন করেছিল স্থানীয় মুসলিম সম্প্রদায়।ব্রিটিশ দৈনিক ডেইলি মেইল ও আমিরাতের দৈনিক খালিজ টাইমসে এ নিয়ে সচিত্র প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে। তাতে বলা হচ্ছে, গতকাল মুসলিম ধর্মাবলম্বীদের আয়োজিত ওই নামাজের জামাতে যোগ দিয়েছিলেন খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের মানুষও। ধর্মের ভেদাভেদ ভুলে বৃষ্টির জন্য সৃষ্টিকর্তার কাছে প্রার্থনা করেছেন তারা।দুই সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদন অনুযায়ী, রোববার অস্ট্রেলিয়ার একদল মুসলিম দাবানল সংকট থেকে উত্তরণে সৃষ্টিকর্তার কাছে প্রার্থনা করতে জমায়েত হয়েছিলেন ওই পার্কে। তাতে অংশ নেন অর্ধশতাধিক পুরুষ, নারী এবং শিশু। তারা সমবেতভাবে নামাজ আদায় করে দুহাত তুলে বৃষ্টির জন্য প্রার্থনা করেন।অস্ট্রেলিয়ার ধর্মীয় সংগঠন ‘সেন্টার ফর খ্রিষ্টান অ্যান্ড মুসলিম রিলেশনস’ এই আয়োজনটি করেছিল। তাতে অংশ নেয়া খ্রিষ্টান পাদ্রী প্যাটরিক ম্যাকনেরনি বলেন, ‘আজ আমি মুসলিম ভাই-বোনের সঙ্গে বৃষ্টির এই প্রার্থনায় যোগ দিয়েছি। আমার বন্ধু মোহাম্মদ আবদুল্লাহ খুতবায় সৃষ্টিকর্তার ওপর বিশ্বাস ও তওবার ওপর জোর দিয়েছেন।’আশ্চর্যের ব্যাপার হলো, রোববার অ্যাডিলেডের বোনিথন পার্কে নামাজের পর দাবানলে জ্বলতে থাকা অস্ট্রেলিয়ায় নেমে এসেছে স্বস্তির বৃষ্টি। দেশটির কিছু অংশে বৃষ্টির কারণে সাময়িকভাবে তাপমাত্রা কমে গেলেও কর্মকর্তারা সতর্ক করে দিয়ে বলেছেন, আগুন আবার জ্বলবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here