শিবগঞ্জে অতিবৃষ্টিতে মৌসুমী ফসল ও ধানের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি, কৃষকরা দিশেহারা

0
4
শিবগঞ্জে অতিবৃষ্টিতে মৌসুমী ফসল ও ধানের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি, কৃষকরা দিশেহারা

রবিউল ইসলাম রবি শিবগঞ্জ (বগুড়া) প্রতিনিধি: বগুড়ার শিবগঞ্জে টানা বৃষ্টির কারণে নদীর পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় আমন ধানসহ মৌসুমী ফসলের ব্যপক ক্ষয়ক্ষতি সাধিত হয়েছে। দুঃচিন্তায় কৃষকরা দিশেহারা হয়ে পরেছে। গত ৭দিনের টানা বর্ষার কারণ বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার করোতোয়া, গাংনই, নাগর নদীর পানি বৃদ্ধির ফলে এমন ক্ষতি হয়েছে বলে জানিয়েছেন কৃষকরা। শিবগঞ্জ উপজেলা কৃষি প্রধান এলাকা হওয়ার ফলে এবং মাটি ফসলের জন্য উর্বর হওয়ায় কৃষকরা তাদের জমিতে বিভিন্ন ধরনের শস্য উৎপাদন করে উপজেলার চাহিদা মিটিয়ে দেশের বিভিন্ন জায়গায় উৎপাদিত ফসল সরবরাহ করে থাকে।রবিবার সরেজমিনে প্রাপ্ত তথ্য মতে, এ বছর উপজেলার কৃষকরা আমন ধানের পাশাপাশি শীত কালীন সবজি ফুলকপি, বাধা কপি, মূলা, পিয়াজ, মরিচ রোপন করে পরিচর্যা করে আসছে, কিন্তু গত ৭দিনের দিনের টানা বৃষ্টির কারণে উপজেলার গুজিয়া, সাদুল্লাপুর, অর্জুনপুর, শ্যামপুর, মাঝপাড়া, আলীগ্রাম, সংসারদীঘিসহ বিভিন্ন এলাকার ফসল ও নদীর তীরবর্তী এলাকার জমির ফসল আমন ধান, শীত কালীন সবজি ফুলকপি, বাধা কপি, মূলা, মরিচ পানিতে তলে যায়।

ফলে এ উপজেলার কৃষকদের ব্যপক ক্ষতি সাধিত হয়েছে। শিবগঞ্জ সদর ইউনিয়নের কৃষক আব্দুস শামসুল মন্ডল বলেন, আমার জমি করতোয়া নদীর তীরে, এবছর ৪ বিঘা জমির কপি পুরোটাই পানির নিচে তলিয়ে গেছে, কৃষক আলতাব হোসেন বলেন, আবহাওয়া ভালো থাকায় ৩বিঘা জমিতে আমি মৌসুমি ফসল পটল চাষ করে ছিলাম,তা পুরোটাই এখন পানির নিচে, সফিকুল ইসলাম বলেন, আমার ৬ বিঘা জমির আমন ধান নষ্ট হয়ে গেছে। আর মাত্র কয়েক দিন তাহলে আমার গোলায় ধানগুলি কেটে তুলতে পারতাম। এছাড়াও ততোধীঁক কৃষক জানান, শীত মৌসুমের সবজি ফুল কপি, মূলা, বাধা কপি ও মরিচের চারা নষ্ট হয়েছে, ধানে মাজরা পোঁকা ধরেছে পাশাপাশি ইঁদুর ফসল নষ্ট করছে। কৃষকদের তথ্য মতে এ ক্ষতির পরিমান প্রায় অর্ধ কোটি টাকা, তারা সরকারী ভাবে কোন পরামর্শও পাচ্ছেনা। এ বিষয়ে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আল-মুজাহিদ বলেন, উপজেলার কিছু নিচু এলাকার ফসল তলিয়ে নষ্ট হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকদের কোন প্রণোদনা দেওয়া যায়কিনা তা নিয়ে কৃষি বিভাগের সাথে আলোচনা চলছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here